পরিষ্কার পানি খেয়ে অসুস্থ হওয়ার ভয়ে তাকসিমকেই ওয়াসার এমডি হিসেবে চায় ঢাকাবাসী

২২৬ পঠিত ... ১৫:১১, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০

পঞ্চমবারের মতো আরও ৩ বছরের জন্য ওয়াসার এমডি পদে থাকছেন তাকসিম এ খান। গত ১১ বছরে ওয়াসায় দৃশ্যমান কোন পরিবর্তন না আসায় কিছু মানুষ তাকসিম এ খানের পঞ্চমবারের নিয়োগ নিয়ে সমালোচনা করেছেন। তবে সমালোচনাকারীদের জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি বলে দাবি করেছে ঢাকা ওয়াসার গ্রাহকরা। বরং ঢাকাবাসীর স্বার্থেই তাকসিম এ খানকেই আজীবন ওয়াসার এমডি হিসেবে চান তারা।

ঢাকা ওয়াসার গ্রাহকদের দাবি, গত ১১ বছরে ময়লা, নোংরা পানি খেতে খেতে তারা এতে অভ্যস্ত হয়ে গেছে। এখন নতুন কাউকে যদি এমডি নিয়োগ দেয়া হয়, সে যদি কোনভাবে ওয়াসার গ্রাহকদের ভালো পানি সরবরাহ শুরু করে তাহলে তাদের পেট কি তা সহ্য করতে পারবে? চারপাশে ছড়িয়ে পড়বে পরিষ্কার পানিবাহিত রোগ। ঢাকা ওয়াসার এত গ্রাহক, আইসিডিডিআরবি কী এত লোকের চিকিৎসা দিতে পারবে!

তাকসিম এমডি থাকলে পানির চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি ওয়াসা গ্রাহকদের আমিষের চাহিদাও মেটাবেন বলে ধারণা জুরাইন প্রবাসী এক গ্রাহকের। তিনি বলেন, 'ওয়াসার পানির সাথে অনেকদিন ধরেই অণুজীব আসে। কিছুদিন পর অণুজীবগুলো কেঁচো হবে, হয়তো ওয়াসার পাইপ দিয়ে মাছও আসা শুরু করবে। তাকসিম স্যার এমডি পদে না থাকলে যদি এই প্রজেক্ট বন্ধ হয়ে যায়? আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কথা চিন্তা করে হলেও তাকসিম স্যার আজীবন মেয়াদ দিয়ে হোক, প্রয়োজন হলে মরোনোত্তর এমডি রাখার নিয়মও চালু করা হোক।'

ওয়াসার পানির মাছ দিয়ে তাকসিম এ খানের জন্য মাছ ফ্রাই করা শিখছেন বলেও জানান শরবত বানানো এই কাকা।

২২৬ পঠিত ... ১৫:১১, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০

Top