ফার্স্ট ইম্প্রেশনে সবাইকে ইয়াবা পাচারকারী মনে হয়: বাংলাদেশ পুলিশ

৩১৯ পঠিত ... ২০:০৩, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০

ফেসবুকে ফার্স্ট ইম্প্রেশন চ্যালেঞ্জ নামে ফেসবুকে নতুন এক ট্রেন্ড শুরু হয়েছে। এই ট্রেন্ডে গা ভাসাচ্ছেন আবাল-বৃদ্ধ-বনিতা সবাই। তবে এই চ্যালেঞ্জটির প্র্যাকটিকাল ভার্সনে গা ভাসিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশও। নিজেদের একটি ফেক পেজ থেকে অনলি মি করা এক পোস্টে তারা জানায়, 'প্রথম দেখায় মানুষ আমাদের কী মনে করে তা তো আমরা জানি। সেজন্য আমরা ফার্স্ট ইম্প্রেশন চ্যালেঞ্জ দিচ্ছি না, বরং নিচ্ছি।'

ফেসবুকে ফার্স্ট ইম্প্রেশন চ্যালেঞ্জ দেয়া সবার উদ্দেশ্যে পুলিশের এই ফেক পেজ থেকে জানানো হয়, 'টু বি অনেস্ট... ফার্স্ট ইম্প্রেশনে আপনাদের সবাইকে ইয়াবা পাচারকারী মনে হয়।'

কয়েকটা হাসির ইমো দিয়ে ওই পোস্টে পুলিশের অন্য এক ফেক পেইজ থেকে কমেন্ট করে জানানো হয়, 'ফার্স্ট ইম্প্রেশনে অবশ্য সবাইকে ইয়াবা পাচারকারী সাব্যস্ত করা যায় না। তবে পুলিশের সন্দেহও তো আর ফেলনা নয়! সেজন্য সেকেন্ড ইম্প্রেশন মানে সেকেন্ড তল্লাশি চৌকিতে সাব্যস্ত হয়ে যায়।'

সেকেন্ড তল্লাশি চৌকি থেকেও যদি কেউ বেঁচে যায়, তাহলে ফার্স্ট ইম্প্রেশন বাস্তবায়ন করার জন্য পুলিশ বাসা পর্যন্ত যেতেও দ্বিধাবোধ করে না।

তরুণরাও পুলিশের এমন নজরকাড়া ফার্স্ট ইম্প্রেশন সম্পর্কে জানান আমাদের। দীর্ঘদিন ধরে বাস্তব জীবনেই এমন ফার্স্ট ইম্প্রেশন চ্যালেঞ্জ ফেস করছেন জানিয়ে এক তরুণ বলেন, 'রাস্তায় পুলিশ দাঁড় করালে ফার্স্ট ইম্প্রেশনে নিজেকেই নিজের কাছে ইয়াবা পাচারকারী বলে সন্দেহ হতে শুরু করে। এরপর ব্যাগ, পকেট হাতালে আর সন্দেহ থাকে না, তখন বিশ্বাস করে ফেলি, সত্যিই মনে হয় আমি ইয়াবা পাচারকারী।'

৩১৯ পঠিত ... ২০:০৩, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০

Top