হ্যালুসিনেশনে ভুগছে এইচএসসি পরিক্ষার্থীরা, ৮০ শতাংশের ধারণা পরীক্ষা হয়ে গেছে

৮৫৩ পঠিত ... ১৭:৪৭, সেপ্টেম্বর ০৭, ২০২০

রাহাত নামের ২০২০ সালের এক এইচএসসি পরিক্ষার্থী দড়ি নিয়ে গেছে ফ্যানের সাথে ঝুলে পড়ার জন্য। তার ধারণা সে ২০২০ এইচএসসিতে জিপিএ ফাইভ মিস করেছে, এখন তার প্রথম কাজই হচ্ছে ঝুলে পড়া।

২০২০ সালের অন্য এক এইচএসসি পরিক্ষার্থীকে নিজের বড় ভাইকে লাঠি নিয়ে দৌড়াচ্ছে। কারণ জানতে চাইলে সে বলে, ইনি বলছিলো ভার্সিটিতে উঠলে পড়ালেখা নাই। মিথ্যুক একটা। 
 
শুধু এই দুইজন না, ২০২০ সালের এইচএসসি পরিক্ষার্থীদের বেশিরভাগই এমন হ্যালুসিনেশনের শিকার। কেউ কেউ বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাডমিশন টেস্ট দিতে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে টাকা পয়সাও চাচ্ছে। কেউবা বাসার সদস্যদের কাছেই গিয়ে বসে আছে, তাকে ক্লাবে ভর্তি করানোর জন্য। 
 
সারাদেশ থেকে এমন নানান ধরনের মানসিক সমস্যায় ভোগা রোগীদের পরিসংখ্যান পর্যালোচনা করে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ২০২০ সালের এইচএসসি পরিক্ষার্থীরা ভুগছেন হ্যালুসিনেশনে। ৮০% শিক্ষার্থী মনে করে, এইচএসসি পরীক্ষা হয়ে গেছে। 
 
ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে ভালো থাকা ২০% এর একজনের কাছে যাই আমরা। বিষয়টা নিয়ে নটরডেমের এই শিক্ষার্থী বেশ আফসোস করেন। অনেক শিক্ষার্থীকে এই সমস্যা থেকে তুলে আনতে নিজেদের একটা উদ্যোগের কথাও বলেন তিনি। কথা বলার এক পর্যায়ে আচমকা এই নটরডেমিয়ান বলেন, 'সরি ভাই, আর সময় দিতে পারবো না। আমিতো বুয়েটে ফার্স্ট হয়েছি। প্রথম আলোর জন্য একটা ফিচার লিখতে হবে। আজ যাই, ক্যাম্পাসে আইসেন, আড্ডা দিবোনে।'
 
একটা জেনারেশনের এমন মানসিক অস্থিরতা ভবিষ্যতে তাদের শিক্ষাজীবনের জন্য কতটা ক্ষতিকর, এমন কেন হচ্ছে ও এটা থেকে উত্তরণের উপায় নিয়ে আমরা কথা বলি মনোবিজ্ঞান বিশেষজ্ঞ মাহতাব খানমের সঙ্গে। আমাদেরকে বসতে বলে হাতে করে মিষ্টি নিয়ে এসে তিনি বলেন, 'আমার মেয়েটা ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ ফাইভ পাইছে। মেডিকেলের জন্য জানপ্রাণ লাগিয়ে পড়ছে। আগে মিষ্টি মুখ করে ওর জন্য একটু দোয়া করবেন সবাই।' 
৮৫৩ পঠিত ... ১৭:৪৭, সেপ্টেম্বর ০৭, ২০২০

Top