ফরিদপুরে বন্ধ হতে পারে চাঁদাবাজির শীর্ষ প্রতিষ্ঠান ভাই-ভাই সন্ত্রাসী টেন্ডারপ্রাইজ

২২৯ পঠিত ... ২০:২২, জুলাই ২৮, ২০২০

ফরিদপুরে দুই ভাই বরকত ও রুবেলের ২ হাজার কোটি টাকা মূল্যের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান ভাই-ভাই সন্ত্রাসী টেন্ডারপ্রাইজ (টেন্ডার বিষয়ক এন্টারপ্রাইজ!) বন্ধ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। গত ৭ জুন ভাই-ভাই সন্ত্রাসী এন্টারপ্রাইজের সিইও কাম ফরিদপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও তার রাজনৈতিক পদ ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সহযোগী তারই ছোট ভাই ইমতিয়াজ হোসেন রুবেল গ্রেফতার হলে এমন সম্ভাবনা দেখা দেয়।

প্রথম আলোতে প্রকাশিত এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে জানা যায়, ফরিদপুর শহরে দুর্নীতিতে দারুণ উন্নতি করেছিলো ভাই-ভাই সন্ত্রাসী এন্টারপ্রাইজ। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই তারা বৈশ্বিক দুর্নীতি ব্যবসায় অনুকরণীয় হয়ে উঠেন। তাদের একাধিক ব্যবসার মধ্যে জমি দখল, ফুটপাত দখল ও সরকারি কাজে ১৫% কমিশন খাওয়া অন্যতম। প্রতিবেদন থেকে আরো জানা যায়, সরকারি প্রতিষ্ঠানের নির্ধারণ করা মূল্যের চেয়েও ১০% বেশি টাকা নিতেন তারা। একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান হলেও এলজিইডি, জনস্বাস্থ্য, সড়ক ও জনপদ, শিক্ষা প্রকৌশল, পানি উন্নয়ন বোর্ড, বিআইডব্লিউটিসি, গণপূর্ত, বিআরটিএ, বিদ্যুৎ অফিস, বিএডিসি, পাসপোর্ট অফিসসহ প্রায় সব ধরণের সরকারি অফিস ছিলো তাদের নিয়ন্ত্রণে।

অল্প সময়ে ব্যবসায় দারুণ ঝলক দেখানো ভাই-ভাই সন্ত্রাসী প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ার এমন সম্ভাবনায় হতাশা ব্যক্ত করেছেন অ্যামাজন, অ্যাপলসহ সিলিকন ভ্যালির সব ধরণের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

সিলিকন ভ্যালির অন্যতম উদ্যোক্তা জেফ বেজোস বলেন, 'ব্যবসায় কীভাবে টাকা নিয়ে আসতে হয় তাদের কাছ থেকে শেখা যায়। কোন কাজ না করে সরকারি কাজের ১৫% বেনিফিট নিয়ে আসা অবিশ্বাস্য। আমরা রাতদিন খেটেও ব্যবসায় এমন গ্রোথ নিয়ে আসতে পারিনি।'

মাইক্রোসফট গড়ে তোলা বিল গেটস নিজেও প্রশংসা করেছেন ভাই-ভাই এন্টারপ্রাইজের নেটওয়ার্কিংয়ের। তিনি বলেন, 'আমলা, কামলা, রাজনীতিবিদের সাথে ডট স্থাপন করে নেটওয়ার্কিং বাড়িয়ে ব্যবসায় অভাবনীয় সাফল্য পাওয়ার তরিকাটি অনুকরণীয়। নিউজ পড়ে মনে হলো, ক্রাইম ড্রামা সিরিজের স্ক্রিপ্ট পড়ছি। এক্সাইটিংভাবে ব্যাপারটা হ্যান্ডেল করেছে। নতুন যারা ব্যবসায় আসবে তারা যেন অবশ্যই ভাই-ভাই সন্ত্রাসী এন্টারপ্রাইজের নেটওয়ার্কিং স্ট্র‍্যাটেজিটা ফলো করে।'

তবে সাময়িক ছন্দপতনে ভেঙ্গে পড়ছে না ভাই-ভাই সন্ত্রাসী এন্টারপ্রাইজের কর্ণধার বরকত ও রুবেল। জেল থেকেই ফ্রি ফেসবুক চালিয়ে তারা eআরকিকে বলেন, 'ব্যবসার মূলমন্ত্র আমরা জানি। ছাড়া পেলেই নতুন উদ্যোমে আবার শুরু করবো।'

জেলে কয়দিন থাকতে হতে পারে বলে ভাবছেন, এমন প্রশ্ন করলে দুই ভাইয়ের একজন জানান, 'আরে জেলে কেন থাকব? সোজা হাসপাতালে গিয়ে উঠবো।'

২২৯ পঠিত ... ২০:২২, জুলাই ২৮, ২০২০

Top