সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা না পেয়ে বাংলাদেশে আসছেন উগান্ডার শীর্ষ ধনী

৩৬৫ পঠিত ... ২০:২৪, জুন ২৮, ২০২০

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উগান্ডার এক শীর্ষ ধনীর সম্প্রতি চিকিৎসা করাতে বাংলাদেশে আসার খবর পাওয়া গেছে। উগান্ডার একটি অনিবন্ধিত সংবাদ সংস্থা এই খবর নিশ্চিত করেছে। খবরের সূত্র ধরে জানা যায়, উগান্ডায় এই ধনী সম্প্রতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয় চিকিৎসা করাতে সিঙ্গাপুর যান। কিন্তু এই সময়ে সিঙ্গাপুরের নাগরিক, নাগরিকদের নিকটাত্মীয় এবং বাংলাদেশে কেস খেয়ে পালিয়ে যাওয়া লোকজন ব্যতীত অন্যদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা থাকায় তিনি সিঙ্গাপুর ঢুকতে পারেননি। সিঙ্গাপুর এয়ারপোর্টে থাকা অবস্থাতেই 'সিঙ্গাপুরের সমান চিকিৎসা ব্যবস্থা' খুঁজতে গেলে বাংলাদেশি রাজনীতিবিদদের দ্বারা সত্যায়িত করা দ্বিতীয় সিঙ্গাপুরের খোঁজ পান তিনি। সৌভাগ্যক্রমে অন্য সবার মতো তিনিও জেনে যান, চিকিৎসা ব্যবস্থায় দ্বিতীয় সিঙ্গাপুর বাংলাদেশ।

কিছু টাকা খরচ করলে করোনাভাইরাস নিয়েও বাংলাদেশে ঢোকা যায়; বাংলাদেশের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের দ্বারা এমনটা জেনেই তিনি বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। যাত্রারত অবস্থাতেই eআরকিকে দেয়া এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, 'দ্বিতীয় সিঙ্গাপুর হলেও বাংলাদেশের তেমন অহমিকা নেই, এটা আমাকে মুগ্ধ করেছে। টাকা খরচ করলে করোনা নিয়েও ঢোকা যাবে, এই সিস্টেমটাও ভালো। টাকাতো বড় কথা না, মানবতাই বড় কথা। তাছাড়া মানবতার জন্য টাকা নেয়ার আইডিয়াটা দারুণ। সিঙ্গাপুরের আগে বাংলাদেশের খবর জানলে আমি অবশ্যই আগে বাংলাদেশে আসতাম।

এ পর্যায়ে তিনি হালের আফ্রিকান কানাডিয়ান ফেসবুক তারকা বোরজাহ ইয়ানকির সুরে সুর মিলিয়ে বলেন, 'আমরা করোনার চেয়েও শাক্তিশালী'।

বাংলাদেশের টাকা, ক্ষমতা ও লিংক দেখে আইসিইউ বন্টননীতিরও বেশ প্রশংসা করেন তিনি। তিনি বলেন, 'গরিব-বড়লোক একই জায়গায় চিকিৎসা নেয়াটা একটা বৈষম্য বলে আমি মনে করি। গরিবদের জন্য তো বহিঃর্বিভাগ আছে। আমরা তো সেখানে গিয়ে ঝামেলা করছি না। তাহলে তারা কেন আমাদের আইসিইউতে আইসা ঝামেলা করবে! আমাদের দেশেও এই ঝামেলা আছে। কিন্তু বাংলাদেশে এমন বৈষম্যের ঝামেলা নেই দেখেই এসেছি।'

'কিন্তু আমাদের দেশে তো এখন কোন আইসিইউ খালি নাই' এমন তথ্য দিলে বিমানের পাশের সিটে রাখা ডলারের বস্তা দেখিয়ে তিনি বলেন, খালি না থাকলে করাবো। এই দেশে শুনেছি এইগুলা এডিট করা যায়। এত বড় বস্তাতেও হবে না? তবে না হলেও ক্ষমতাবানদের সাথে লিংক করার কাজ চলছে। এয়ারপোর্টে নামতে নামতেই হয়ে যাবে আশা করি।'

দ্বিতীয় সিঙ্গাপুরের চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে গেলে পাকাপাকিভাবে এখানেই থেকে যাওয়ার আশা ব্যক্ত করেন তিনি বলেন, 'বিমান থেকে ঢাকায় একটা লস অ্যাঞ্জেলস দেখলাম। জানতে পারলাম ওটার নাম হাতিরঝিল। ওই লস অ্যাঞ্জেলসের আশাপাশে একটা বাসা নিয়ে থেকে যাবো ভাবছি।'

সবশেষে তিনি আবারও বোরজাহর মতো (বে)সুর করে গেয়ে ওঠেন, 'আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি...'

৩৬৫ পঠিত ... ২০:২৪, জুন ২৮, ২০২০

Top