করোনাকালীন উচ্চ মাধ্যমিক ব্যাচকে স্নাতক সমমানের মর্যাদা দেয়ার প্রস্তাব

১৯২ পঠিত ... ১২:৫৮, জুন ০১, ২০২০

প্রকাশিত হয়েছে এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল। সেই সাথে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের পড়ালেখায় আরো একটা ব্যাচ প্রবেশ করলো। করোনায় আটকে থাকা এইচএসসি ব্যাচ ও বর্তমানে ইন্টার ফার্স্ট ইয়ারে থাকা ব্যাচের সাথে সদ্য যোগ হওয়া ফ্রেশার ব্যাচ মিলে উচ্চ মাধ্যমিকে এখন তিন ব্যাচের মিলনমেলা। এমন বিরল ঘটনাকে ইতিহাসে অমর করে রাখতে বিশেষ বিবেচনায় করোনাকালীন এইচএসসি ব্যাচকে ৩ বছর মেয়াদী স্নাতক সমমানের মর্যাদা দেয়া হতে পারে। এক অনুষ্ঠিত না হওয়া সভায় eআরকিকে এমনটাই জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এই অননুষ্ঠিত সভায় এইচএসসি 'করোনা ব্যাচের' ধৈর্যের প্রশংসা করে আরো জানানো হয়, 'করোনার কারণে এই উচ্চমাধ্যমিক ব্যাচটা একটা করোনাজটে পড়ে গেছে। তবুও তারা দাঁতে দাঁত চেপে বসে আছে পরীক্ষা দেয়ার জন্য। তাদের এই ধৈর্য ও অপূরণীয় ক্ষতির কথা বিবেচনা করে আমরা এই সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছি। তাছাড়া এতে আমাদেরও কিছুটা দায়মুক্তি আছে। একইসাথে, সম্পূর্ণ সেশনজট মুক্ত একটা স্নাতক ডিগ্রীও পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশ।'

উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে প্রথমবারের মতো একসাথে ৩ ব্যাচ পাওয়ার এই ঘটনাকে বিশেষ মর্যাদা দিতে ব্যাচগুলোর আইডেন্টিটি ফার্স্ট ইয়ার বা সেকেন্ড ইয়ার না রেখে কিছু স্মারক নামের বিষয়েও প্রস্তাব দেয়া হয় সভায়। সভায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, 'ঘটনা যেহেতু বিরল, সেহেতু নামেও কিছুটা নতুনত্ব আসছে। টিপিক্যাল ফার্স্ট, সেকেন্ড ইয়ার থাকছে না। আমরা চিন্তা করেছি, পরীক্ষার আশায় বসে থাকা ব্যাচকে এইচএসসি আদু ভাই বর্ষ, সদ্য এসএসসি পাস করা ব্যাচকে এইচএসসি কচিকাঁচা বর্ষ এবং সেকেন্ড ইয়ারে উঠার অপেক্ষায় বসে থাকা ব্যাচকে এইচএসসি ঝুলে থাকা বর্ষ নামে নামকরণ করার প্রস্তাব এসেছে।'

তবে মন্ত্রণালয়ের এমন সিদ্ধান্তের ব্যাপক সমালোচনা করেছেন নিজেদেরকে প্রথম সারির দাবি করা কিছু সংখ্যক শিক্ষার্থী। উদ্ভাসের তুখোড় ব্যাচে ভর্তি হতে চাওয়া এই শিক্ষার্থীরা বলেন, 'আমাদের স্নাতক লাগবে না, এমনকি এইচএসসি পরীক্ষাও লাগবে না। আমরা সরাসরি উদ্ভাসের তুখোড় ব্যাচে ভর্তি হতে চাই।'

১৯২ পঠিত ... ১২:৫৮, জুন ০১, ২০২০

Top