সিকদার ব্রাদার্সকে অভিনন্দন জানালেন রাইট ব্রাদার্স

১৯৪৩ পঠিত ... ২০:৪৮, মে ২৯, ২০২০

বিমান উড্ডয়নের ইতিহাসে গত ২৫ মে তারিখটি লেখা থাকবে করোনাক্ষরে। কারন এই করোনার মধ্যে, চরম প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে একটি উড়োজাহাজ বাংলাদেশ থেকে উড়ে গেছে থাইল্যান্ডের উদ্দেশ্যে।

আর তাই অবিস্মরণীয় এই ঘটনার পেছনে থাকা সিকদার ব্রাদার্সকে অভিনন্দন জানিয়েছেন উড়োজাহাজের আবিস্কারক দুই ভাই- রাইট ব্রাদার্স। নিজেদের ফেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে তারা এই অভিনন্দন জানান।

সিকদার ব্রাদার্সের ভূয়সি প্রশংসা করে রাইট ব্রাদার্স লিখেছেন, 'তাদের এই অবদান আমাদের কাজকেও ছাপিয়ে গেছে৷ আমরা যখন বিমান নিয়ে উড়েছি তখন আমাদের মাথার উপর কোনো মামলা ছিলো না। অথচ এই দুই ভাই মাথায় মামলার চিন্তা নিয়েও একচুল পিছপা হয়নি। তারা বিমান নিয়ে নিজেদের লক্ষ্যে অবিচল থেকেছে।'

সিকদার ব্রাদার্সের অদম্য ইচ্ছা শক্তি আর চরম একাগ্রতার কারনেই এটা সম্ভব হয়েছে উল্লেখ করে রাইট ব্রাদার্স বলেন, 'সিকদার ব্রাদার্সের সঙ্গ পেলে বিমান আবিষ্কার করতে আমাদের এত দীর্ঘ সময় লাগতো না।' করোনা পরবর্তী সময়ে বিমানের আধুনিকায়নে তারা সিকদার ব্রাদার্সের সহায়তাও কামনা করেন।

স্তুতিবাক্যে তারা আরো লেখেন, 'এই অর্জন শুধু সিকদার ব্রাদার্সের নয়, এটা সমগ্র বিমান উড্ডয়নের ইতিহাসে একটি মাইলফলক হিসেবে চির অম্লান থাকবে৷' এ সময় কমেন্টে উইলবার রাইট বলেন, 'অনেক কষ্টে বিমান চালানো শিখেছি। এবার সিকদার ব্রাফার্সের কাছে বন্দুক চালানোটাও শিখতে চাই।'

তবে অরভিল রাইট বলেছেন অন্য কথা। তিনি বলেন, 'শুনেছি মামলার সাক্ষী ময়না পাখি, তবে আমরা সিকদার ব্রাদার্সের পক্ষে তাদের মামলায় সাক্ষী দিতে চাই। সিকদার ব্রাদার্সের যেকোনো কর্মকান্ডে তাদের সাথে আছি আমরা রাইট দেয়ার, রাইট ব্রাদার্স।'

১৯৪৩ পঠিত ... ২০:৪৮, মে ২৯, ২০২০

Top