ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শান্তিরক্ষা মিশন পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত নিল জাতিসংঘ

৩৯৪৭ পঠিত ... ১৯:১৬, এপ্রিল ১৫, ২০২০

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে আবারো আলোচিত বাংলাদেশ। না, বিশ্বব্যাপী শান্তিরক্ষা মিশনে নিয়োজিত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিশেষ অবদানের জন্য না! এবার বাংলাদেশেই পরিচালিত হবে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন। এক বিশেষ সাধারণ সভায় বাংলাদেশের ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া জেলায় শান্তিরক্ষা মিশন পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয় জাতিসংঘ।

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতারেস এক বিবৃতিতে বলেন, 'বাংলাদেশের এই অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠার বিষয়টা আমাদের ভাবনায় থাকলেও, করোনাভাইরাসের প্রকোপে স্থগিত করেছিলাম। কিন্তু আমরা থামলে কী হবে, ওদের তো কোনো থামাথামি নেই। করোনার মধ্যেও মাসে ১০-১২ বার সংঘর্ষের খবর! করোনাও যাদের ঠেকাতে পারে না, তাদের ঠেকাতে মাঠে নামতেই হবে।'

জাতিসংঘের সবচেয়ে বিপজ্জনক মিশন 'মালি শান্তিরক্ষা মিশনে'র চেয়েও ব্রাক্ষণবাড়িয়ার মিশন চ্যালেঞ্জিং হবে বলে জানান তিনি। এটি সাম্প্রতিক সময়ে জাতিসংঘের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ মিশন হতে পারে, এমনটাই আশঙ্কা গবেষকদের। জাতিসংঘের মহাসচিব বলেন, 'শান্তিরক্ষা মিশনে কাজ করা প্রতিটি অঞ্চলেই সংঘর্ষ বা গৃহযুদ্ধের পেছনে বড় সামাজিক-রাজনৈতিক ইস্যু বা কারণ ছিল। সেসব ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক যৌক্তিক সমাধানে এসেই শান্তি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। কিন্তু বি.বাড়িয়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া উচ্চারণ করতে তার বেশ কষ্ট হচ্ছিল) অঞ্চল নিয়ে কয়েক দশক গবেষণার পরও সংঘর্ষের পেছনে তেমন কিছু খুঁজে পাইনি। ফলে কীভাবে কী সমাধান করবো এখনো বুঝে উঠতে পারছি না।'

নিজের হাতে দাঁড়িয়ে যাওয়া লোম দেখিয়ে মহাসচিব বলেন, 'শুনেছি ওখানে নাকি খুশিতে, ঠেলায়, ঘোরতে ঘোরতেও সংঘর্ষ হয়। কী ভয়ংকর ব্যাপার।'

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানুষদের সংঘর্ষের পেছনের মনস্তাত্ত্বিক জটিলতা খুঁজে বের করতে বেশ কিছু আন্ডারকভার অফিসারও নিয়োগ দিয়েছে জাতিসংঘ। তবে গোপন সূত্রে জানা গেছে, অনেক শীর্ষ অফিসারই এত বড় ঝুঁকি নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

এছাড়াও জাতিসংঘের বিশেষ তত্ত্বাবধানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জনগণের জিনগত বৈশিষ্ট্যও বোঝার চেষ্টা করা হচ্ছে। গবেষণার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একজন মাথা চুলকাতে চুলকাতে জানান, 'বিবাড়িয়ার (উনারও উচ্চারণে সমস্যা) কয়েকজন মানুষের কোষের স্যাম্পল নিয়েছিলাম। মাইক্রোস্কোপের নিচে রেখে দেখি কোষগুলাও মারামারি শুরু করছে!'

এ পর্যায়ে তিনি কিছুক্ষণ বাকরুদ্ধ অবস্থায় তাকিয়ে থেকে 'এই চাকরি আর করুম না বা*' টাইপ রাগের অভিব্যাক্তি জানিয়ে ল্যাব থেকে বের হয়ে যান।

জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে একসাথে এতগুলো টিমের কাজ করার রেকর্ডও এই প্রথম।

৩৯৪৭ পঠিত ... ১৯:১৬, এপ্রিল ১৫, ২০২০

Top