সমন্বিত ভর্তিপরীক্ষার মতো জয়া আহসান, পরিমনি আর পিয়া বিপাশার সমন্বিত পেজ চায় ফেসবুকাররা

১৩৪১ পঠিত ... ১৪:৪২, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২০

শিক্ষার্থীদের হয়রানি কমাতে দেশের সবগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ঢাবি, রাবি, জাবি, চবি ও বুয়েট ব্যতীত)। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের এই সিদ্ধান্তের ফলে উল্লেখিত ৫টি বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া বাকি সব বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য মাত্র একটি পরীক্ষা দিলেই হবে। সারাদেশ ঘুরেঘুরে শিক্ষার্থীদের বাড়তি প্যারায় যেতে হবে না। 

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের এমন সিদ্ধান্তের পরই পরিমনি, জয়া আহসান, পিয়া বিপাশা ও পূর্ণিমার সমন্বিত ফেসবুক পেজের দাবিতে সরব হয়ে উঠেছে বাংলার ফেসবুক। হয়রানি ও আলাদা আলাদা করে তাদের পেজ ঘুরার প্যারা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য এমন দাবি তুলেছেন তারা। 

এই চার অভিনেত্রী ও মডেলের অঘোষিত সম্মিলিত পাগলা ফ্যান ফোরামের এক বিশেষ সভা থেকে এমন দাবির পক্ষে জনমত সংগ্রহ করা হয়। ফোরামের সভাপতি শামিম আহসান জানান, ‘চারজনই আমাদের ভালোবাসার মানুষ। তারা আলাদা আলাদা থাকবে ক্যান? এতে ক্রাশত্ববোধ নষ্ট হয়। তাছাড়া অন্য দেশের মানুষ দেখলে কী বলবে? একটা দেশে মাত্র ৪-৫ টি জাতিয় ক্রাশ তারাও একসাথে থাকতে পারে না! এ ভীষণ লজ্জার। বহির্বিশ্বে আমাদের ক্রাশত্ববোধ নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে।’

একটা সমন্বিত পেজ থাকার অনেকগুলো সুবিধার কথাও বলেন একজন। তিনি জানান, ‘সময়, শ্রম (!), অর্থ সবই তো বাঁচে এতে। এমবি আর বাফারিং-এর প্যারা নিয়ে সবার জন্য আলাদা আলাদা সময়, শ্রম খরচ করার প্যারা নাই। তাছাড়া আমাদের স্ক্রিনটাইমও কমবে এতে। কষ্ট কমে যাবে তাদেরও। সব পেজের সবগুলো অ্যাডমিন একসাথে কাজ করলে আরো দারুণ দারুণ আইডিয়া নিয়ে কাজও করতে পারবে।’

ফোরামের সেক্রেটারি বেশ রসিকতা করে বলেন, ‘সবার আইডিতে  যাইয়া যদি ১ বার ক্রাশ খাই তাইলে ওভারওয়েট হয়ে যাবো। আমাদের ক্রাশরাও ওভারওয়েট ফ্যান ডিজার্ভ করে না। সেজন্য একটা পেজ থাকলে একবারই ক্রাশ খাওয়া হবে। ওভার ওয়েট হওয়ার চিন্তা নাই।’

এদিকে মিথিলার বেশ কিছু ফ্যান পিয়া, পুর্ণিমা, জয়া, পরির পেজের সাথে মিথিলার পেজকে একীভূত করার প্রস্তাব রাখলে কান হেলাল সেখানে একটা অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করে। বুকে সজোরে তিনটা থাপ্পড় মেরে কান হেলাল বলে ওঠেন, ‘মিতিলা শুধু আমার। আমি কান হেলাল। আই এম কান হেলাল। মিতিলা বেপি প্লিজ কাম বেক।’

১৩৪১ পঠিত ... ১৪:৪২, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২০

Top