eআরকির সম্পাদক হওয়ার প্রস্তাব পেয়েছিলাম, গ্রহণ করিনি : মুফতি তারেক মনোয়ার

৪৭৫৩ পঠিত ... ২০:৫৭, জানুয়ারি ২০, ২০২০

পৃথিবীর কোনায় কোনায় যার বিচরণ, ইংল্যান্ড থেকে আফগানিস্তান, আমেরিকা থেকে চাঁদ, অক্সফোর্ড থেকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ সবাইকে যিনি ফিরিয়ে দেন তিনি তারেক মনোয়ার! শুধু তাই নয়, পরপর তিন বছর অক্সফোর্ডের সেরা শিক্ষক নির্বাচিত হওয়ার পরও তিনি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এই লোভনীয় চাকরি ছেড়ে দেন। খ্যাপ খেলে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে নিজের একটি উজ্জ্বল ক্যারিয়ার গড়ে নেয়ার পরও তিনি ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ ছেড়ে চলে এসেছেন সেই নব্বইর দশকে।

ইতোপূর্বে নিজের বিভিন্ন বয়ানে এমন সব কীর্তির কথা বলা কীর্তিমান এই পুরুষ সম্প্রতি eআরকির সম্পাদক হওয়ার প্রস্তাবও ফিরিয়ে দিয়েছেন।

হোক না ফিরিয়ে দেয়া, তাও eআরকির সম্পাদকের প্রস্তাব পাওয়া এই ব্যক্তিকে এক নজর দেখতে ও তার আরো কীর্তি সম্পর্কে জানতে আমরা দ্রুত আমাদের প্রতিবেদক সঞ্জয় সরকারনাজমুল হককে তার দপ্তরে পাঠাই। কিন্তু ফিরিয়ে দেয়ার অভ্যাসবশত আমাদের সম্পর্কে না জেনেই তিনি আমাদের ফিরিয়ে দেন। পরবর্তীতে তার কীর্তি সম্পর্কে জানতে ও মানুষকে জানাতে এসেছি শুনে তিনি আমাদেরকে সাক্ষাৎকার দিতে সম্মত হন।

আমরা শুরুতেই জানতে চাই তার এমন সব কীর্তি সম্পর্কে যেগুলো তার পরিবার ও স্বয়ং তিনি নিজেই জানেন না।

আমাদের প্রশ্নের অপেক্ষা না করেই তিনি আমাদের বলতে শুরু করেন, 'মেলানিয়া পাম্প, রেসলার ডোনাল্ড পাম্পের মেয়ে। এই সুন্দরী মেয়েটা আমাকে বেশ মহব্বত করতো! এই তো কয়েকদিন আগে, চায়ের দাওয়াত দিছিলো। একবার না, কয়েক হাজার বার! যাইনি! সুন্দরি হোক কিংবা রেসলারের মেয়ে হোক। পরনারী তো! তার সাথে আমার দেখা করা নাজায়েজ!'

এমন বলে বেশ কিছুক্ষণ থেমে থাকেন তিনি। আমরা প্রশ্ন করার প্রস্তুতি নিতেই তিনি আবারো হাকডাক ছেড়ে বলেন, 'ওই মিয়ারা, কথা কন না ক্যান? জায়েজ কি না? কথা কন ঠিক না বেঠিক?'

সাক্ষাৎকার চালিয়ে নেয়ার জন্য আমরা 'ঠিইইক' বলার আগেই তিনি নিজে থেকে আবারো বলতে শুরু করেন, 'পৃথিবীর সবচেয়ে বড় পয়সাওয়ালা, আইফুনের মালিক বেলগ্রেডের কথা তো বিশ্ববাসী জানেই। তবে বিশ্ববাসী আরো একটা কথা জানে না। হাওয়াই গাড়ি বানায় যে ওই ছেলেটা! ইলন মফিজ। চাঁদে আমার আসা যাওয়া সম্পর্কে জানতো! একবার ফোন দিছিলো। মঙ্গলে ক্যামনে কী করা যায় জানার জন্য! আমি তাকেও ফিরিয়ে দিয়েছি। চাঁদ মঙ্গলে বসতি হবে আমাদের। যেখানে আল্লামা সাঈদী থাকে, সেখানে একজন অমুসলিমকে আমি কীভাবে পাঠাই! আরে মিয়া কথা কন ঠিক কি না?'

'হুজুর, eআরকি সম্পাদক হওয়ার প্রস্তাবটা ফিরিয়ে দিলেন কেনো?' আমাদের এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, 'ওরা আমাকে প্রস্তাব দিছিলো। এখন না। সেই ১৯৮০ সাল থেকে দফায় দফায় আমাকে সম্পাদক বানাতে চেয়েছিলো। আমি একবার এই দায়িত্ব গ্রহণ করার সিদ্ধান্তও নিছি। কিন্তু ভেবে দেখলাম, সবকিছু নিয়ে eআরকি করা ঠিক নয়। সেজন্য ফিরিয়ে দিয়েছি। এটা কেউ জানে না, আমার পরিবারও না। এমনকি আমি নিজেও জানি না। কিন্তু আজকে ফট করে আপনাদেরকে বলে দিলাম।'

 

আরও পড়ুন-

পৃথিবীর নতুন শ্রেষ্ঠ ধনী বেল গ্রেডের কাছে আইফোনের মালিকানা হারালেন স্টিভ জবস

৪৭৫৩ পঠিত ... ২০:৫৭, জানুয়ারি ২০, ২০২০

Top