টাইম ম্যাগাজিনের সেরা ১০০ উদ্ভাবনের তালিকা প্রকাশ : বাংলাদেশিদের তীব্র প্রতিবাদ

৫৯৬ পঠিত ... ১৪:৫১, নভেম্বর ২৬, ২০১৯

দুই দিন আগে আমেরিকার বিখ্যাত ও প্রভাবশালী ম্যাগাজিন টাইম ম্যাগাজিন ২০১৯ সালের সেরা ১০০ উদ্ভাবনের তালিকা প্রকাশ করেছে। অথচ আশযর্য ব্যাপার, বাংলাদেশের কোনো উদ্ভাবনের নাম নেই সেখানে। পদে পদে তত্ত্ব থেকে তথ্য আবিষ্কারে পারদর্শী বাংলাদেশিরা উদ্ভাবনে অন্য দেশের কারো চেয়ে পিছিয়ে তো নেই-ই, বরং সৃষ্টিশীলতার ও উদ্ভাবনী ক্ষমতার দিক দিয়ে এগিয়ে আছে উন্নত অনেক দেশের চাইতেও। তবুও বাংলাদেশি কোনো গুণীজনের কোন আবিষ্কার এই তালিকায় স্থান পায়নি! ‘বাংলাদেশ ষড়যন্ত্র ফাউন্ডার পার্টি’র ব্যানারে টাইম ম্যাগাজিনের এমন ষড়যন্ত্র ও বৈষম্যমূলক আচরণের প্রতিবাদ জানিয়েছে সারা দেশের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

কারওয়ান বাজারে কার্বাইড দিয়ে কলা পাকানো কলা কাশেম নিজের অল্প বয়সী কলা পাকানো পদ্ধতির পেটেন্ট নিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশে এসে জানান, 'এই যে সময়ের আগেই একটা বাচ্চা কলাকে আমি যৌবনে নিয়ে যাইতে পারি, এই আবিষ্কার তাগো চোখে পড়ে নাই? এইটা তো টাইম ট্রাভেলের মতো একটি আবিষ্কার! নাকি টাইম ট্রাভেল দিয়ে বাচ্চা কলাকে যৌবনে নেয়ার এই উদ্ভাবনের কথা প্রকাশ করলে ওগো টাইমই থাকবো না!' এরপর তিনি সমাবেশের সবাইকে একটি করে কলা খাইয়ে প্রতিবাদে সামিল করান। তবে কেউ কেউ কার্বাইডের ব্যাপারটা শোনার পর কলা খেতে অস্বীকৃতি জানান।

এদিকে কোন মহাকর্ষীয় আকর্ষণের ব্যাপার স্যাপার ছাড়াই বিভিন্ন পণ্যে পাথর মিশিয়ে ওজন বাড়ানো ‘পাথর পার্টি’ও আসেন প্রতিবাদে। সারা বছর ধরে চালে, ডালে, গমে, এমনকি চিংড়ি মাছের মাথায় পেরেক দিয়ে পৃথিবীতে থাকা অবস্থাতেই কোন কিছু ওজন বাড়িয়ে ফেলা চারটি খানি কথা না! পাথর পার্টির একজন সমাবেশে নিজের বক্তৃতায় বলেন, 'এইটা তো মহাকর্ষ নিয়ে গবেষণার বড় বড় বুলি আউড়ানো আমেরিকানদের জন্য রীতিমত চ্যালেঞ্জ! সে জন্য তারা আমাদের এই আবিষ্কারের কথা প্রকাশ করে নাই! করলে পরে দেখা যাবে মহাকর্ষ গবেষণা হ্যাগো জায়গা আমরা দখল কইরা ফেলবো! আমাদের সরকারেরও উচিত এই বিষয়ে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানানো!'

পেটস মানে পোষাপ্রাণিদের সুবিধা-অসুবিধা বিবেচনায় দারুণ কোন আবিষ্কারের জন্য টাইম ম্যাগাজিন একটি ক্যাটাগরিতে সেরা উদ্ভাবনের স্বীকৃতি দিয়ে থাকে। ফেসবুকে বিভিন্ন সেলিব্রেটি ভাইদের ফ্যান ক্লাবের এক সহমত সদস্য জানান, 'এই ক্যাটাগরিতে আমাদের বস, আমাদের ভাইই স্বীকৃতি পাওয়ার একমাত্র দাবিদার। কত যতনে তিনি আমাদের আগলে রেখেছেন। আমাদের সুবিধা-অসুবিধা দেখতেছেন! উনিই তো আমাদের পাইলা বড় করলেন।' এ সময়ে এই সদস্যের সাথে সহমত প্রকাশ করে সমাবেশ থেকে ঠিক,ঠিক কলতান শোনা যায়।

পেঁয়াজ সিন্ডিকেট তুড়ির জোরে কোন কিছু অদৃশ্য করে দেয়ার পেটেন্ট আবিষ্কার করার জন্য সেরা উদ্ভাবনের তালিকায় নিজেদের স্বীকৃতির দাবি করেন।

সমুদ্রে একটা ঘুরান্টি দিয়ে সোনাদিয়া দ্বীপকে মালয়েশিয়া বানানোর জন্য বাংলাদেশি মানব পাচারকারী দল নিজেদেরকে ঘুরান্টি কলম্বাস স্বীকৃতি প্রদানের জন্যও দাবি তোলেন! এছাড়াও রডের বদলে বাঁশ দিয়ে বিল্ডিং বানানো ইঞ্জিনিয়ার, ১০ জনের লেগুনায় ২০ জন তুলে ফেলার প্রযুক্তি আবিষ্কারক লেগুনার হেলপার, রাজপথে হাইপার স্পেস জাম্প আবিষ্কার করা বাসচালক এসব সৃষ্টিশীল মানুষেরাও আন্দোলনে শামিল হওয়ার কথা জনিয়েছেন।

তবে সেরা উদ্ভাবনের স্বীকৃতি প্রদানের জন্য আবেদন করা লাগে, eআরকির প্রতিনিধি এমন তথ্য দিলে প্রতিবাদ সমাবেশের এক আহবায়ক জানান, 'আমরা আবিষ্কার করতে করতে কুল পাই না! আবেদন করার টাইম কই! টাইম ম্যাগাজিন টাইম নিয়ে আমাদের এইসব আবিষ্কারের খোঁজ খবর নিতে পারে না! ওরাই যদি আমাদের আবিষ্কার না করতে পারে, তাইলে ওরা লিস্ট বানাইতে যায় কেন?'

৫৯৬ পঠিত ... ১৪:৫১, নভেম্বর ২৬, ২০১৯

Top