যুবলীগের দায়িত্ব পেলে প্রেসিডেন্ট পদ ছেড়ে দেবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

৩৬০৬ পঠিত ... ২১:১৫, অক্টোবর ১৯, ২০১৯

পৃথিবীর সবচেয়ে দামী বস্তু কী? এই প্রশ্ন নিয়ে এতদিন প্রচুর তর্ক-বিতর্ক থাকলেও এই মূহূর্তে পৃথিবীর মানুষের কাছে এই রহস্য পরিষ্কার! আধ্যাত্মিকতা আর ক্ষমতার মিশেলে এখন তামাম দুনিয়ার কাছে সবচেয়ে দামি ও আকাঙ্ক্ষিত বস্তু যুবলীগের পদ। অমৃত সুধা ছাড়াই চিরযৌবনা রাখার অধ্যাত্মিক ক্ষমতা, অর্থ-বিত্ত, প্রভাব, প্রতিপত্তির কম্বো মিলিয়ে তামাম দুনিয়ার সব বিশ্ব নেতাদের চোখও স্বভাবতই হীরা, তেল, নিউক্লিয়ার পাওয়ারসহ সব দামি বস্তু থেকে সরে গিয়ে যুবলীগের পদে পদলেহন করছে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) উপাচার্য (ভিসি) ড. মীজানুর রহমান প্রথম আলোকে বলেছেন, যুবলীগ ভাবমূর্তি সংকটে পড়েছে। এই সংগঠনের ভাবমূর্তি উদ্ধারে যদি তাঁকে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়া হয় তাহলে তিনি সেই দায়িত্ব সাদরে গ্রহণ করবেন।

ওদিকে হোয়াইট হাউজে ২০২০ সালের মার্কিন নির্বাচন নিয়ে পরিকল্পনা করছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু যুবলীগের পদের কথা জানতে পারা মাত্রই পরিকল্পনা সব পেপার ডাস্টবিনে ফেলে দিয়ে যুবলীগের পদের দিকে জ্বলজ্বল দৃষ্টিতে অপলক তাকিয়ে থাকা অবস্থাতেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, 'খেতা পুড়ি আমেরিকান প্রেসিডেন্টের পদের! এই পদ আমাকে কেবল সমালোচনাই দিয়েছে। আমি যুবলীগের পদ চাই। সেখানে গিয়ে নিজের হারানো যৌবন আবারো ফিরে পেতে চাই।'

এ সময় যুবলীগের পদকে স্যার উপাধি পাওয়ার মতো বিষয় জানিয়ে ট্রাম্প আরও বলেন, 'যুবলীগ যদি আমাকে গ্রহণ করে তাহলে আমেরিকান প্রেসিডেন্টের পদ তো ছাড়বোই। সাথে আমার স্থাবর-অস্থাবর সকল সম্পত্তি যুবলীগের পদতলে সমর্পন করবো।'

 

তবে পৃথিবীর অন্য নেতারাও কিন্তু বসে নেই! রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, যুবলীগের একটা পদ তারও চাই। একটা পদের জন্য তার এত বছরের রাশিয়ান সম্রাজ্য ছেড়ে দেয়ার কথা জানিয়ে দলেবলে যুবলীগের পদ অভিমুখে রওয়ানা হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানান পুতিন।

এদিকে যুবলীগের পদের আশায় রয়েছেন মাদার অব ড্রাগন খ্যাত ড্যানেরিস টারগারিয়ানও। পদের অন্যান্য প্রার্থীদের ভয় দেখানোর জন্য ড্রাগনদের মাথায় হাত বুলাতে বুলাতে দাঁত কিড়মিড় করে যুবলীগের পদের উদ্দেশ্যে গুণগুণ করে বলেন, 'তুমি আমার না হলে তুমি কারোর হতে পারবে না। জ্বালিয়ে পুড়িয়ে চারখার করে দিবো সব!'

তবে পদকে একদমই নিজের বলে দাবি করলেও কোন সহিংসতার পথে যেতে চাননি কিম জং উন। তিনি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে কোরিয়ান সম্রাজ্য দিয়ে দেয়ার লোভ দেখিয়ে বলেন, 'ভাই আমেরিকা তো আছে আপনার, আমার কোরিয়াও নেন, দরকার হইলে পুতিনরে পুঁত কইরা রাশিয়াও আপনারে দিবো! তবুও যুবলীগের পদ থেকে চোখটা সরান ভাই!

এদিকে অতি সম্প্রতি বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়া সৌরভ গাঙ্গুলী একটি সঙবাদ সম্মেলনে জানান, 'মাত্রই বিসিসিআই চেয়ারম্যান হিসেবে জয়েন করলাম। তাতে কী, হু কেয়ারস! দরকার হলে আজকেই, এই মূহূর্তে ছেড়ে দেবো এই পদ।'

যুবক ও বাঙালি হওয়ায় যুবলীগের পদের উপর নিজের অগ্রাধিকারের কথাও বলেন সৌরভ।

তবে একটু ভিন্ন পথে হাটার কথা বলেন বিশিষ্ট সাধক সাধু নরেন্দ্র মোদী! যুবলীগের পদ পাওয়ার প্রতিযোগিতায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে হারাতে পারবেন কি না, সে বিষয়ে চিন্তিত দেখা যায় মোদীজিকে! জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে টপকে যুবলীগের পদ পাওয়ার জন্য তিনি ট্রাম্প, পুতিন, কিম, ডেনেরিসসহ বিশ্বের ও অল্টারনেট ইউনিভার্সের সব নেতা ও সুপারহিরোদের একজোট হয়ে সর্ববিশ্ব ঐক্যজোট ঘোষণারও প্রস্তাব দেন।

৩৬০৬ পঠিত ... ২১:১৫, অক্টোবর ১৯, ২০১৯

Top