বিডিজবসকে বেকারত্ব দূর করার ওপেন চ্যালেঞ্জ দিলেন অপূর্ব-নিশো

৭৬৫ পঠিত ... ১৯:৫৫, আগস্ট ১৮, ২০১৯

প্রতি বছরই ঘুরে ফিরে আসে দুই ঈদ, ঈদের সঙ্গে আসে দশ-পনেরো-বিশ দিন ব্যাপী ঈদ-নাটকের আয়োজন। আর ঈদ-নাটক মানেই তো অপূর্ব আর নিশোর নিদারুণ বেকারত্ব! দিন গেল, বছর গেল, কত কিছু হয়ে গেল এই পৃথিবীতে। তবু ঈদ নাটকে অপূর্ব আর আফরান নিশোর কোনোদিন একটা চাকরি হলো না। এই দুই নায়কের বেকারত্ব আর ঈদ নাটক যেন এখন সমার্থক।

এবার বিডিজবসের উদ্দেশে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন এই দুই চিরবেকার নায়ক। উদ্যোক্তাদের স্লোগান যেমন 'চাকরি করবো না, চাকরি দেবো', অপূর্ব-নিশোর স্লোগান তেমনি 'চাকরি করবো না করবো না করবোই না জাস্ট চাকরি খুঁজবো।'

এ প্রসঙ্গে একটি প্রচুর ফলোয়ারওয়ালা ফেক আইডি থেকে অপূর্ব লেখেন, 'বেকার থাকা কোনো সাধারণ ব্যাপার না। এটা একটা শিল্প। চারিদিকে কত চাকরির ওয়েবসাইট, কিন্তু কেউ কি পেরেছে আমাকে চাকরি দিতে? পারবেও না। কারণ বেকারত্বকেও আমি একটা স্বাধীন পেশা হিসেবে নিয়েছি। বলতে পারেন, বেকার থাকাই যেন আমার জীবিকা।'

এ পর্যায়ে বিডিজবসকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে তিনি বলেন, 'পারলে দেন তো দেখি আমাকে একটা চাকরি। হেহে, কখনোই পারবেন না। ঈদ নাটকের নাট্যকাররা আমাকে ঠিকই বেকার বানিয়ে দেবে।'

এমন সুর পাওয়া গেল আফরান নিশোর একটি ফেক আইডির স্ট্যাটাসেও। সেখানে তিনি লেখেন, 'বেকারত্বের সাথে আমার এখন অন্যরকম এক বন্ধুত্ব হয়ে গেছে। নিজের বেকারত্বের উদ্দেশ্যে নিজেই মাঝেমধ্যে গুনগুন করে গাই, তোরা ছিলি, তোরা আছিস, জানি তোরাই থাকবি...'

এদিকে বেকারত্বের আইকন হয়ে ওঠা অপূর্ব-নিশোকে কোনো চাকরি দেয়া সম্ভব কিনা, এ ব্যাপারে বিডিজবসের সঙ্গে আলাপ করলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক (নাম বললে চাকরি থাকবে না, মানে তিনিও বেকার হয়ে যাবেন) এক কর্মকর্তা জানান, 'উনাদেরকে চাকরি দেয়া বিডিজবস তো দূরের কথা, স্টিভ জবসের পক্ষেও সম্ভব না। বরং উনাদের ভক্তরা আগামী দিনগুলোতে দলে দলে চাকরি ছেড়ে বেকার হয়ে ঘোরাকেই ট্রেন্ড বানিয়ে ফেলে কিনা সেটা আগে দেখেন!'

[eআরকি একটি স্যাটায়ার ওয়েবসাইট। এখানে প্রকাশিত কোনো খবর বিশ্বাস তো দূরের কথা, অবিশ্বাসও করবেন না।]

৭৬৫ পঠিত ... ১৯:৫৫, আগস্ট ১৮, ২০১৯

Top