চারিদিকে এত মানুষ, কারে আক্রান্ত করুম বুঝতাছি না: একান্ত সাক্ষাৎকারে করোনাভাইরাস

৬৭৯ পঠিত ... ২০:০৮, জুন ০৪, ২০২০

করোনার মাধ্যমে আমরা যে শুধু সংক্রমিত হচ্ছি তাই নয়, বরং একই সাথে আমরা হচ্ছি কনফিউজড। একদিকে বিটিভি বলছে, 'পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে', আবার অন্যদিকে প্রতিদিন শুনছি, 'গত চব্বিশ ঘন্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০০০'। ঘটনাটা তাহলে কী?

এই রহস্যের কুল কিনারা না পেয়ে আমরা পিপিই পরে, হাতে মাইক্রোস্কোপ নিয়ে নেমেছিলাম রাস্তায়। কারণ, প্রকৃত 'করোনা পরিস্থিতি' একমাত্র করোনাই আমাদের এখন জানাতে পারে।

আমরা কোনোমতে ভিড় ঠেলে ফার্মগেট পৌঁছলাম। মাইক্রোস্কোপে চোখ রাখতেই ব্রিজের উপর একটি বিষণ্ণ করোনাকে একা এক কোণায় বসে থাকতে দেখলাম। কাছে যেতেই কিছুটা বিরক্তি প্রকাশ করলেন তিনি৷ যেন একটু একা থাকতেই চেয়েছিলেন।

প্রশ্ন করতে যাবো, এমন সময় করোনার নিজেই আমাদের প্রশ্ন করে বসলেন, 'আচ্ছা, আপনাগো কি লজ্জা শরম বইলা কিছু নাই? বাইর হইছেন কিজন্য?

: ইয়ে মানে, আমরা অল্প কিছু প্রশ্ন করেই বাসায় চলে যাবো। এই ধরেন দুই তিনটা প্রশ্ন।

: তাত্তাড়ি জিগান কী জিগাইবেন। মন-মেজাজ ভাল নাই।

: তবুও টেমপ্লেট প্রথম প্রশ্নটা দিয়েই শুরু করি। একটু যদি বলতেন, কেমন আছেন..

একটা দীর্ঘঃশ্বাস ফেলে করোনা বলতে শুরু করলেন, 'দিনকাল ভালোই যাইতেছিলো। ভাবছিলাম ওয়ার্ল্ড ট্যুর দিমু৷ চায়না থেইকা কেউ গেলো আমেরিকা, কেউ গেলো ইউরোপ৷ আমার ইউরোপ দেখার শখ আছিলো। গেলাম ইতালি। ওইখানে ঘুইরা এরপর ভাবলাম বাংলাদেশটা দেইখা আসি৷ কিন্তু, আপনাগো এই দ্যাশে আইসা একদম ভালো লাগতেছে না!'

: কেন? কেন? আমাদের দেশ তো অনেক সুন্দর। দেখার তো অনেক কিছু... আপনি বিটিভি দেখেন নাই?

: আরে মিয়া, দেখা কি আমগো কাম নাকি? আমাগো কাম হইলো ঘুইরা বেড়ানো আর মানুষরে আক্রান্ত করা। কিন্তু এইখানে চারদিকে এত মানুষ, এত মানুষ যে, কারে আক্রান্ত করুম সেইটাই তো বুঝতাছি না!

: তাহলে কি বাংলাদেশ থেকে চলে যাবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন?

: সেইরকমই ইচ্ছা ছিল। কিন্তু আপনারা যত সহজে এয়ারপোর্ট দিয়া করোনা ঢুকতে দেবন, অন্যরা তো এমন না। করোনা আক্রান্ত কারও ওইসব দেশে এখন ঢোকারই অবস্থা নাই। সিকদার ব্রাদার্সরে ধইরা সিঙ্গাপুর যাবো ভাবছিলাম। মিস হয়ে গেছে...

: তাহলে তো সত্যিই বিপদে আছেন৷ আচ্ছা করোনা ভাই, শেষে যদি একটু বলতেন, বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি আসলে কেমন আছে?

: আপনাগো বিটিভির কথাই ঠিক। করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেই আছে।

: কী বলেন! আমরা তো ভাবতাম নিয়ন্ত্রণে নাই!

: কেন রেগুলার ৩০০০ আক্রান্ত দেইখা বোঝেন না? করোনা পরিস্থিতি এখন করোনাগো নিয়ন্ত্রণে আছে।

কথাটা বলেই হোহো করে হেসে উঠলেন করোনা ভাই। করোনার এরূপ রসিকতায় আমরা কিছুটা বিব্রত হলাম।

করোনা ভাই তখন বললেন, 'আসেন আপনাগো লগে একটা সেলফি তুলি৷ পিপিইডা খোলেন। সেলফি তোলার জন্য পিপিই খুলতেই আমাদের শরীরটা খারাপ লাগতে শুরু করল। শুরু হয়ে গেলো গলা ব্যথা আর কাশি। অনেক কষ্টে সেল্ফি তোলার জন্য ফ্রন্ট ক্যামেরা অন করলাম। কিন্তু করোনা ভাইকে তখন আমরা আর খুঁজে পেলাম না...

৬৭৯ পঠিত ... ২০:০৮, জুন ০৪, ২০২০

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

স্যাটায়ার


Top