কুকুর, বিড়াল ছাড়া আরও যে প্রাণীগুলো আপনি সহজে পুষতে পারবেন

২০৫ পঠিত ... ১৭:৪৬, জানুয়ারি ১৭, ২০২২

Posha-prani

লেখা- ইমাম হোসেন 

গুণীজনে বলেন, ‘জীবে প্রেম করে যেই জন / সেই জন সেবিছে ঈশ্বর।‘

বর্তমান সময়ে পোষা প্রাণী একটি ট্রেন্ড হিসেবে দাঁড়িয়েছে।   হাল ফ্যাশনের যুগে আপনার যদি পোষাপ্রাণী না থাকে, তাহলে আপনার স্ট্যাটাস মেনটেইন বেশ মুসকিল।

কুকুর, বিড়ালের পাশাপাশি আপনি আরও বেশ কিছু প্রাণী খুব সহজে পুষতে পারেন এবং তার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে নিজেকে সমসাময়িক সময়ের উপযোগী এবং কোমল হৃদয়ের মানুষ হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করতে পারেন।

গবেষণায় দেখা যাচ্ছে আবহমান কাল ধরে আমাদের দেশ জুড়ে বিড়াল বা কুকুরের অবাধ বিচরণ থাকলেও তারা যেমন সাম্প্রতিক সময়ে এসে বাঙালির কাছে মূল্যায়ন পেয়েছে, সেভাবে অন্য প্রাণী গুলো এখনও মূল্যায়ন পায়নি।

তাই আপনার সামান্য চেষ্টা এই প্রাণীগুলোকে বেড রুমের তুলতুলে বিছানায় আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের স্ক্রিনে তুলে আনতে পারে।

 

উঁকুন

কুকুর, বিড়ালের পাশাপাশি আপনি খুব সহজে উঁকুন পুষতে পারেন। বিভিন্ন উঁকুন নাশক শ্যাম্পু ও পুঁজিবাদী ব্যবসায়ীদের ঘন দাঁতের চিরুনির কারণে উঁকুন আজ বিলুপ্তির পথে। অথচ উঁকুন পুষতে যেমন ঝক্কিঝামেলা কম তেমনি আপনার অর্থ সাশ্রয় হবে। কুকুর, বিড়ালকে সব জায়গায় সাথে করে নিয়ে যেতে না পারলেও আপনি খুব সহজে উঁকুন নিয়ে যেকোনো জায়গায় যেতে পারবেন। মাথায় তেল ব্যবহারে আপনার চুল যেমন শক্ত হবে তেমনি মাথার উঁকুনও বেড়ে উঠবে স্বাস্থ্যসম্মত ভাবে।

 

তেলাপোকা  

ক্লিনিং আর পেস্ট কন্ট্রোল কোম্পানিগুলোর অপচেষ্টা আর বাংলা সিনেমায় নায়িকাদের আর্ত-চিৎকারে আমাদের দেশে তেলাপোকা আজ হুমকির মুখে। অথচ তেলাপোকা হতে পারে আপনার অন্যতম পোষা প্রাণী। সামান্য কিছু প্রস্তুতি নিয়েই আপনি খুব সহজে তেলাপোকা পুষতে পারেন। তাদের থাকার জায়গা কিংবা খাবার নিয়ে আপনার বিশেষ চিন্তার কারণ নেই৷ আপনার বাসায় যে কোনো জায়গায় তারা নিজেদের মতো ভালো থাকবে।

 

ছারপোকা

'ছারপোকা' পোষা প্রাণী হিসেবে আপনার বেডরুমে থাকার বিশেষ দাবিদার। ছোটখাটো নিরীহ এই প্রাণীটি সম্পর্কে বলতে গেলে চোখে পানি চলে আসে। মানুষ কিভাবে এই আদুরে প্রাণীটিকে টিপে টিপে হত্যা করে। গত ১০ বছরের পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় ছারপোকা অস্তিত্ব আর সংকটাপন্ন। অবস্থার ইতিবাচক চিত্র ব্যাচেলর বাসা আর পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো। সেখান থেকে কয়েকটি ছারপোকা একে আপনার বালিশ কিংবা তোষকে রাখতে পারেন।

 

ইঁদুর   

হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা থেকে শুরু করে ফুটপাতের হকার, সকলের পুঁজিবাদী প্রচারণার পরেও নেংটি ইঁদুর কিংবা গেছো ইঁদুর সব মহা আনন্দে টিকে আছে। তাদের ছলছল চোখ, গোফ আর ছোঁচালো মুখ আপনার মুখের কাছে নিয়ে যদি ছবি তোলেন তাহলে অবশ্যই সেই ছবি অনেক বেশি লাইক পাবে। আপনি যদি ইঁদুর পোষেন, তাদের ছোটাছুটি আপনাকে উজ্জীবিত করবে। তাই নিজে ও পরিবারকে উজ্জীবিত করতে ইঁদুর পুষুন।  

 

মশা

মশা হতে পারে আপনার অন্যতম পোষা প্রাণী। মশারী লাগানোর হাত থেকে চিরতরে মুক্তি নিয়ে মশাকে করে তুলুন আপনার প্রিয় প্রাণী। রাতে মশার গান শুনতে শুনতে ঘুমানোর সুবিধার পাশাপাশি একসাথে একই ক্যাটাগরির বেশী সংখ্যক প্রাণী পোষার জন্য পদক পাবারও সম্ভাবনা আছে।

 

মাছি

মাছি পুষে আপনি হতে পারেন অন্যদের থেকে আলাদা। আপনার হাত ধরেই আসতে পারে নতুন ট্রেন্ড। একবার ভাবুন আপনার প্রিয় পোষা প্রাণীটি ভোঁ ভোঁ সংগীত করতে করতে সময়ে অসময়ে আপনার নাক, কান, মাথার আশেপাশে ঘোরাফেরা করবে। আদুরে আদুরে একটা ভাব নিয়ে আপনাকে স্পর্শ করবে। চোখ বন্ধু করে ভাবুন আপনার পোষা মাছির সাথে আপনার সম্পর্ক, আর মাছি পোষা শুরু করেন।

 

ব্যাঙ

উভচর প্রাণী ব্যাঙ আপনি খুব সহজে পুষতে পারেন। ঘুমের সময় যেমন সাথে নিয়ে ঘুমাতে পারেন, তেমনি গোসলের সময়ও পাশে রাখতে পারেন। কুনো ব্যাঙ পোষার উপকারিতা অনেক। আপনি বাইরে যাবার আগে বৃষ্টি হবে কিনা ব্যাঙ ঘ্যাঙর ঘ্যাঙ ডেকে তা বুঝিয়ে দেবে৷ পৃথিবীতে নানান প্রজাতির ব্যাঙ আছে। আমাদের গ্রামাঞ্চল কিংবা চিলি ঘানা থেকে আপনার পছন্দসই ব্যাঙ সংগ্রহ করে পুষতে পারেন।

 

কেঁচো

কেঁচো চাষ করে অনেক বাঙালি স্বাবলম্বী হলেও সবাই শুধু অর্থ উপার্জনের মাধ্যম হিসেবেই দেখেছে, কেউ মানবিকতা দেখায়নি। আপনি হতে পারেন সেই মানবিকদের একজন। ব্যালকনি, রান্নাঘর, ওয়াশরুম যেকোনো জায়গায় রেখে বড় করতে পারেন আপনার প্রিয় কেঁচো। সাইজে ছোট হওয়ায় বাহিরে যাওয়ার সময় ব্যাগের সাইড পকেটে ভরে নিতে পারেন৷

আর দেরি না করে বেছে নিন আপনার প্রিয় পোষা প্রাণী আর প্রিয় প্রাণীর ছবি আপলোড করুন ফেসবুকে।

২০৫ পঠিত ... ১৭:৪৬, জানুয়ারি ১৭, ২০২২

Top