না দেখেই যেভাবে রেহানা মরিয়াম নূর সিনেমার রিভিউ লিখবেন...

৮১৭ পঠিত ... ১৫:২৪, নভেম্বর ১৮, ২০২১

rehana-noor-review

১# রিভিউর শুরুতেই স্পয়লার এলার্ট সিগন্যাল দিয়ে দিবেন৷ এতে পাঠকের মনে প্রথম লাইন থেকেই বিশ্বাস অর্জিত হবে৷ কিছুক্ষণ পর এই লেখা পড়ে হয়তো আপনার নিজেরই মনে হবে আপনি আসলেই সিনেমাটি দেখেছেন।

২# এরপরই আপনাকে মনস্থির করতে হবে আপনি কোনভাবেই সিনেমার গল্পে যাবেন না৷ এতে ধরা খাওয়ার চান্স থাকে৷ আপনাকে আগাতে হবে পরিচালক, নায়ক, নায়িকার প্রশংসা করতে করতে৷ এতে রিভিউও হয়, ধরা খাওয়ার চান্সও কম থাকে৷

৩# এই সিনেমাটি যেহেতু কানের মত একটি চলচ্চিত্র উৎসবে গিয়েছে সেহেতু কানের প্রসঙ্গটি অবশ্যই আনবেন৷ কোন সেকশনে নমিনেশন পেয়েছে তা জানাতে ভয় পাবেন না। একটু গুগল করলেই হবে৷

৪# পরিচালকের নামটা খুঁজে একটু গুগল করে নিতে হবে৷ সেখান থেকে এই পরিচালকের কয়েকটি সিনেমার নাম জেনে রিভিউ তা উল্লেখ করবেন৷ চেষ্টা করবেন, কম আলোচিত বা একদম শুরুর দিকে কাজগুলো নিয়ে দু-একটা কথা লিখতে। এতে আপনার প্রতি মানুষের বিশ্বাস আরো পাকাপোক্ত হবে।

৫# বাঁধনকে নিয়ে দুএকটা প্রশংসা বাণী অবশ্যই দেবেন। সাম্প্রতিক কোন কাজের কথা টানতে পারেন। বলতে পারেন, রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো খেতে আসেননি-তে অসাধারণ অভিনয় করেছেন নায়িকা। মনে রাখবেন, অসাধারণ বলতে সিনেমা না দেখলেও চলে।

৬# বিজিএম, সাউন্ড, সিনেমাটোগ্রাফি—এই ধরনের সিনেম্যাটিক ওয়ার্ড ব্যবহার করতে ভুলবেন না৷ পারলে নিজের মন মতো একটু প্রশংসা বা সমালোচনা করতে পারেন৷ চিন্তা করবেন না, আপনার মত বেশিরভাগ দর্শকই এই বিষয়গুলো নিয়ে বেশি কিছু জানে না৷ সো, ধরা খাওয়ার চান্সও নেই৷

৭# এই সিনেমাতে যে একটি সামাজিক মেসেজ দেয়া হয়েছে, এই বিষয়টি উল্লেখ করবেন৷ তবে কী মেসেজ দিয়েছে তা উল্লেখ করার দরকার নেই৷ আপনি যেহেতু সিনেমাটি দেখেন নি সেহেতু মেসেজ সম্পর্কে আপনার জানারও কথা না৷

৮# রেটিং দেয়াটা অত্যন্ত গুরুত্বুপূর্ণ৷ এখানে আপনাকে মুন্সিয়ানার পরিচয় দিতে হবে৷ অনেক বেশি পয়েন্ট দেয়া যাবে না, এতে নিজেকে বোদ্ধা দর্শন প্রমাণ করতে পারবেন না৷ অনেক কম রেটিংও দিবেন না—এতে আপনার সিনেমা সম্পর্কে না জানা প্রকাশ পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে৷ রেটিং দিতে হবে মাঝামাঝি পর্যায়ের৷ তবে ট্রেন্ড ফলো করে আলাদা আলাদা রেটিং দিতে পারেন৷ যেমন—বিজিএম, ৭/১০, সিনেমাটোগ্রাফি ৬/১০, কস্টিউম ৭/১০, কালার, ৫/১০।

৮১৭ পঠিত ... ১৫:২৪, নভেম্বর ১৮, ২০২১

Top