মাস্ক পরে স্কুলে যাওয়ার ১০টি সুবিধা

২১০ পঠিত ... ১৪:২৩, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১

school-e-mask-pore-jabar-subidha

দেড় বছর পর খুললো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। খুললেও করোনার মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মানাটা একপ্রকার বাধ্যতামূলকই৷ ইউনিফর্মের সাথে যুক্ত হবে নতুন আইটেম মাস্ক। মাস্ক যে শুধু করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে সাহায্য করবে তা কিন্তু না, স্কুলে মাস্ক পরে যাওয়ার রয়েছে আরো ১০১টি সুবিধা। সেই ১০১টি সুবিধা থেকে সেরা ১০টি সুবিধা তুলে ধরা হলো eআরকির পাঠকদের জন্য।

 

১# মাস্ক মুখে দিয়ে অনবরত কথা বলতে থাকলেও ক্লাস ক্যাপ্টেন কিছুই দেখবে না, নামও লিখতে পারবে না।

 

২# নিজের ক্লাস ভালো না লাগলে মাস্ক পরে দিব্যি অন্য ক্লাসে গিয়ে বসে থাকা যাবে।

 

৩# চাইলে একই পিরিয়ডে দুই-তিনবারও বাইরে যাওয়া যাবে৷ শুধু পকেটে কয়েক রংয়ের আলাদা আলাদা মাস্ক রাখলেই হলো।

 

৪# ক্লাস চলাকালিন ক্ষুধা লাগলে মাস্কের ভেতর ঢুকিয়ে টিফিন খাওয়া যাবে।

 

৫# দাঁড়ি নিয়ে ইচ্ছামত স্টাইল করা যাবে৷ স্যার দেখবেও না, বকবেও না...

 

৬# স্যার কান ধরতে বললে বলা যাবে, স্যার আমার মাস্ক কানের কাছে ছেঁড়া, কোনরকম জোড়া লাগাইয়া রাখছি। কান ধরলে নাড়াছাড়ায় মাস্ক পড়ে যাবে।

 

৭# পড়া না পারলে বাইরে দাঁড় করিয়ে রাখলে জুনিয়র ক্লাসের ছেলে-মেয়েরা চিনতে পারবে না, ইজ্জত বাঁচবে।

 

৮# ক্লাসের বাইরে দুষ্টুমির জন্য স্যার ক্লাসে এসে ধরতে পারবে না, মাস্ক পরিবর্তন করলেই সব হাওয়া।

 

৯# জুনিয়র হয়েও সিনিয়রের ভাব ধরে সিনিয়রদের ধমক দেয়া যাবে, ওরা চিনতেই পারবে না।

 

১০# মাস্ক পরার সবচেয়ে বড় সুবিধে হলো করোনা সংক্রমণ থেকে কিছুটা হলেও নিরাপদ থাকা। স্কুল খুলেছে, এর কারণে যে আবারো আমাদের প্রিয় স্কুল বন্ধ না হয়ে যায় সেজন্য আমরা সবাই মিলে নিয়মিত মাস্ক পরবো। হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করবো৷

২১০ পঠিত ... ১৪:২৩, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১

Top