যে ১০ ধরনের পোস্টে 'কেয়ার রিয়্যাক্ট' করবেন

৯৪৯ পঠিত ... ২২:৪৯, মে ০২, ২০২০

নবাগত কেয়ার রিয়্যাক্ট নিয়ে ফেসবুকারদের চিন্তার অন্ত নেই৷ কেউ বলছেন লাভ আর হাহার মাঝখানে এই নতুন রিয়্যাক্টের জন্য রিয়্যাক্ট করার হিসাব নিকাশে তালগোল পাকিয়ে যাচ্ছে। তবে কেন এই রিয়্যাক্ট, কোথায় ব্যবহার করতে হবে এই রিয়্যাক্ট, এরকম নানান প্রশ্নে জর্জরিত বেশিরভাগের মস্তিষ্কের নিউরন। তাদের নিউরনের সকল কনফিউশন দূর করতে আমরা রাতভর হাজারখানেক পোস্টে কেয়ার রিয়্যাক্ট করে গবেষণা করেছি (বিকজ উই কেয়ার)। আসুন দেখে নেয়া যাক, কোন কোন ধরনের পোস্টে আপনি কেয়ার রিয়্যাক্ট করবেন।

১# প্রথমত কেয়ার রিয়্যাক্টটা খেয়াল করলে দেখবেন, ইমোজিটা হার্টকে জড়িয়ে ধরছে। অর্থাৎ যাদের দেখলেই আপনার ইচ্ছা করে জড়ায় ধরতে, তাদের সব পোস্ট এবং ছবিতে কেয়ার রিয়্যাক্ট দিতে পারেন। তারা যদি কেয়ার করে, বাকিটা তারা বুঝে নেবে।

২# কিছু কিছু মোটিভেশনাল পোস্ট আছে, যেগুলো পড়লেই আপনার ভেতরে উদ্দীপনা জেগে ওঠে। একদিনের জন্য হলেও আপনি নিজেকে বদলে ফেলেন। সেসব পোস্টে কেয়ার রিয়্যাক্ট দিন। কারন, কেয়ার করেছেন বলেই আপনি মোটিভেটেড হচ্ছেন।

৩# ক্রাশের ছবিতে কেন কেয়ার রিয়্যাক্ট দিতে হবে, তা নিশ্চই আপনাকে বলে দিতে হবেনা? লাভ তো সবাই দিবে, আপনাকে হতে হবে স্পেশাল। তাই নির্বিচারে ক্রাশের সকল পোস্টে কেয়ার রিয়্যাক্ট দিন। তবে যদি দেখেন, বেশিরভাগই কেয়ার দিচ্ছে, সেক্ষেত্রে দিতে হবে ওয়াও...

৪# বিষন্নতা বিষয়ক সকল পোস্টে কেয়ার রিয়্যাক্ট দিন। এতে বিষন্ন লোকটা কিছুটা হলেও সহমর্মিতা পাবেন। 'অন্তত কেউ তাকে কেয়ার করে', এই সান্তনা থাকবে তার মনে।

৫# ফ্রেন্ডলিস্টে থাকা পরিবারে সিনিয়র সদস্যদের সকল পোস্টে কেয়ার দিন। কেয়ার না দিলে তারা আপনাকে 'ড্যামকেয়ার' বা 'বেয়াদব' ভাবতে পারে।

৬# রাত দুইটায় যেসব সিঙ্গেল ছেলেরা একাকীত্ব বিষয়ক স্ট্যাটাস দেয়, তাদের পোস্টে কেয়ার রিয়্যাক্ট দিন। ওরা অসহায়। লাভ রিয়্যাক্ট দেয়াটাও যেহেতু আবার একটু বেশি মিথ্যা স্বান্তনা হয়ে যায়, তাই ওই কেয়ার রিয়্যাক্ট ছাড়া ওদের কেয়ার নেয়ার তো আর কেউ নেই...

৭# হলের বা পলিটিকাল সিনিয়র ভাইয়ের পোস্টে আগে 'সহমত ভাই' লিখে কমেন্ট করলেই হয়ে যেতো৷ কিন্তু দিন বদলাইছে৷ এখন প্রথমে সেইসব ভাইদের পোস্টে কেয়ার রিয়্যাক্ট দিন। তারপর যত পারেন তৈলাক্ত কমেন্ট করুন৷ এতে নিশ্চিত থাকেন, ভাই আপনাকে বিশেষ নজরে দেখবেন।

৮# যদি রিলেশনশিপে থাকেন, প্রেমিকা বাদে অন্য সব মেয়েদের ছবিতে কেয়ার রিয়্যাক্ট দেবেন। এতে লাভও দেয়া হইলো না, প্রেমিকাও বুঝবে ইউ অনলি লাভ হার। আবার অন্যরাও বুঝবে, যদিও আপনার প্রেমিকা আছে, তবু ইউ কেয়ার...

৯# যেই পোস্টের সঙ্গে আপনি একমত কিন্তু আপনি যে একমত তা অন্যেরা বুঝলে ঝামেলা আছে, সেখানে কেয়ার রিয়্যাক্ট দেবেন। এতে সে ভাববে আপনি একমত, আবার অন্যরা বুঝবে, আপনি একমত না বাট আপনি তার মতামতের কেয়ার করেন...

১০# যে পোস্ট দেখে আপনার খুবই মেজাজ খারাপ হয়েছে, রাগে মন চাচ্ছে লোকটাকে ব্লক করে দিতে, সেখানেও কেয়ার রিয়্যাক্ট দিন। তাকে বোঝান,তার মানসিক সুস্থতার জন্য কেয়ার দরকার...

৯৪৯ পঠিত ... ২২:৪৯, মে ০২, ২০২০

Top