বিয়েবাড়িতে খাবার সময় যে ১০টি ভদ্রতা অবশ্যই পালন করবেন

১২৩১ পঠিত ... ১৮:৩৯, নভেম্বর ১৬, ২০১৯

আসছে হিম হিম শীত। লেগে যাগে ভরপেট বিয়ে খাবার ধুম। আর সেই বিয়েবাড়িতে খাবার টেবিলের এটিকেট বা ভদ্রতার কায়দা-কানুন না জানলে কিভাবে কি? আমাদের eআরকির গবেষণা দল তাই আপনাদের জন্য তুলে এনেছে সেই অবশ্য পালনীয় ভদ্রতাগুলো:

অলংকরণ: শফিক হীরা

১# খাবার টেবিলে বসে ‘এখনও কেন খাবার দিচ্ছে না’- এই বলে জোরে জোরে বিরক্তি প্রকাশ করবেন। বাঙালির সময়জ্ঞান অত্যন্ত খারাপ, এই স্থবির জাতিকে চালু করার মহান দায়িত্ব জাতি আপনার হাতেই তুলে দিয়েছে।

২# বোরহানির জগ দেয়া মাত্র সবার আগে গ্লাসে ঢেলে মুখে নিয়ে শব্দ করে কুলকুচো করবেন। মনে রাখবেন, যতো জোরে কুলকুচি, খাবার হজম ততো দ্রুত হবে।

৩# রোস্টের পিস দেয়ার পর ঘরে আপনি যতো ঘিলা-কলিজি-পাখনা-গর্দানই খান না কেন, ‘লেগপিস ছাড়া আপনি খেতেই পারেন না’- এই বলে আঁতকে উঠবেন। তোরা যে যা বলিস ভাই, আপনার রানের রোস্টই চাই।

৪# রেজালার বাটি দেয়া মাত্র আপনি তাড়াহুড়ো করে ঝোল নেবেন এবং অতি অবশ্যই পাশের জনের কোলে ঝোল ফেলবেন। মনে রাখবেন, স্মৃতি অমলিন, দাগ থেকে যায় চিরদিন...

৫# রেজালা যেমনই হোক না কেন, পাশের জনের সাথে গম্ভীর মুখে আলাপ করবেন- ‘বাটিতে খালি হাড্ডি’ অথবা ‘ঝোলের মাঝে লবণ বেশি’। পাশেরজন গম্ভীরমুখে মাথা ঝোঁকাবেন। অথবা তিনি বললে আপনি সম্মতিসূচক মাথা ঝোঁকাবেন। পরনিন্দা ছাড়া আবার বিয়ে কী?

অলংকরণ: শফিক হীরা

৬# মেন্যুতে অবধারিতভাবে সবজি, টিকিয়া, মাছের ফ্রাই, পনিরের টুকরো, লবস্টার, কবুতরের রোস্ট, কোয়েল পাখির ডিম- এইসবের একটা বা একাধিক আইটেম বাদ যাবে। সেইটা হিসেব করে নিমন্ত্রণকর্তাকে টেবিলে ডাকিয়ে আচ্ছা করে বকা দিন। না বকলে এরা শুধরাবে না। একটু হাঁকডাক না করলে আপনারও সম্মান রক্ষা হবে না।

৭# কাচ্চি বিরিয়ানির ডিশ আসলে সবার আগে ঝাঁপিয়ে পড়ুন, ভালো ভালো মাংসের পিসগুলো সবার আগে প্লেটে তুলে নিন। মনে রাখবেন, খালি আপনার জন্যই আজকের এই বিয়েবাড়ির আয়োজন। বাকিরা খেলো কি না খেলো- তাতে কিচ্ছু যায় আসে না।

৮# খাবার সময় হাঁচতে বা কাশতে পারলে ভালো। আপনি জীব, কাজেই জৈবিক আচরণ আপনার থাকবেই। খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। আর ঘ্রাউক করে একটা বড়োসড়ো ঢেঁকুর তোলা আপনার অবশ্য কর্তব্য। নিমন্ত্রণ কর্তা যে আপনাকে ভালো খাইয়েছেন, সেটা না বোঝাতে পারলে আপনি আর ভদ্রলোক কিসের?

৯# আপনার মেইন কোর্স শেষ হোক বা না হোক, জর্দা দেয়ার পরপরই বাটিটা টেনে নিয়ে উপরের সব ছোট ছোট মিষ্টিগুলো তুলে নিয়ে আপনার প্লেটে রেখে দিন। বলা তো যায় না, আশেপাশে অনেক লোকই বসতে পারে যারা আপনার মাপের ভদ্রলোক না! পরে নিতে গেলে আপনার ভাগ্যে জর্দার সাথে ছোট মিষ্টি না-ও জুটতে পারে।

১০# খাবার পর অতি অবশ্যই লাইন ভেঙে সবার আগে ঠেলে-ধাক্কিয়ে আপনাকে বেসিনে হাত ধুতে হবে। মনে রাখবেন, যারা অহেতুক হাত ধোয়ার জন্য লাইনে দাঁড়ায়, তাদের সময়ের দাম না থাকতে পারে, আপনার আছে! হাত ধোয়ার সময় অতি অবশ্যই টুথপিক ঠোঁটে চেপে রাখতে হবে। যাদের ঠোঁটে টুথপিক থাকে না, তাদের হাত ধোয়া ঠিকমতো পরিষ্কার হয় না।

১২৩১ পঠিত ... ১৮:৩৯, নভেম্বর ১৬, ২০১৯

Top