যে কারণে দ্রব্যমূল্য বেড়ে যাওয়া আমাদের জন্য উপকারী

৭৬৯ পঠিত ... ১৬:৩৩, এপ্রিল ০১, ২০২১

Drobbomullo

নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র চাল ডাল তেল নুন থেকে শুরু করে তরল বায়বীয় সকল জিনিসের দাম বেড়ে গেসে। আপনার যাতায়াতের জন্যে নাই পর্যাপ্ত বাহন, এবং যা আছে তার ভাড়া দ্বিগুণ।

আপনি মনে করছেন অবস্থা বেগতিক, আসলে মোটেও খারাপ না। আমাদের বৃহত্তর স্বার্থের জন্যে এই পরিস্থিতি খুবই উপকারী।

আসল ঘটনা বুঝতে আপনাকে খুবই সুদূরদর্শী হতে হবে। খেয়াল করুন, জিনিসপত্রের দাম বেড়ে গেছে, কিন্তু আপনার স্যালারি বাড়ে নাই। আপনি আপনার বসকে বলে বেতন বাড়াইতে না পারলেও কাজের বুয়া বেতন বাড়ায়া নিছে। সেই সাথে সকল ক্ষেত্রে দ্বিগুণ খরচে আপনি সর্বোচ্চ মাসের ১০ দিন চলতে পারবেন।

১০ দিন পর আপনি পরের ২০ দিন পাগল থাকবেন। ধার দেনা করে চলতে চলতে একটা সময় আপনি আর তাও পারবেন না। কারণ শশ্যাংক রিডেম্পশন সিনেমায় রেড বলছে, এভ্রি ম্যান হ্যাজ এ ব্রেকিং পয়েন্ট! ব্রোক থাকতে থাকতে আপনিও এক সময় আপনার ব্রেকিং পয়েন্টে চলে আসবেন।

তখন আপনার মনের দুঃখে বনে চলে যেতে ইচ্ছা করবে। এই জগৎ সংসারের মায়া ত্যাগ করে দরবেশ হয়ে লোটা নিয়ে ঘুরতে ইচ্ছা হবে, কোনো পাহাড়ের গুহায় ধ্যানে বসে থাকতে ইচ্ছা হবে। স্বর্গের অপ্সরা কুত্থু নাচ নেচেও আপনার ধ্যান ভাঙাতে পারবে না।

কিন্তু মনের দুঃখে যাওয়ার জন্যেও আপনি পর্যাপ্ত বন পাবেন না। আমাদের ২৫ শতাংশ বন থাকার কথা থাকলেও, আছে ১০-১২ শতাংশ। সেগুলার অবস্থাও খারাপ। বন পর্যন্ত পৌঁছতে পৌঁছতেই দেখবেন বনভূমি আরও এক শতাংশ কমে গেছে।

আর পাহাড়ের গুহায় থাকবেন, সেরকম পাহাড়ও সব কাটা হয়ে গেছে, নয়তো ট্যুরিস্ট স্পট বানানো হয়ে গেছে। সেখানে স্বর্গের অপ্সরাগণ আসতে নারাজ, কারণ দে লাইক ইট বিগ ন্যাচারালস... নট প্লাস্টিকস!

তখন আপনি প্রখ্যাত শ্যামাসংগীত শিল্পী রামপ্রসাদের মত 'সংসার ধর্ম বড় ধর্ম মা, তাই পারি না ছেড়ে যেতে' গান গেয়ে সংসারে ফিরে এসে আবার হাবুডুবু খেতে থাকবেন।

কিন্তু আপনার মাথায় থেকে যাবে বনের অভাবে আপনার দরবেশ হওয়া হয় নাই, আপনি নির্বাণ লাভ থেকে কয়েক ইঞ্চি দূরে ছিলেন। আপনি চাইবেন না ভবিষ্যতে আপনার কোনো কমরেড এভাবে নির্বাণ লাভ না করেই ফিরে আসুক।

তখন আপনি নিজ উদ্যোগে গাছ লাগাবেন, অন্যকে উৎসাহিত করবেন। এভাবে দ্রব্যমূল্যের চো...চোটে পাগল পাগল হয়ে যাওয়া মানুষের কল্যাণে বিশাল বন সৃষ্টি হবে, তৈরি হবে নানান গুহা। বাতাবি লেবুর সাথে অপ্সরার বাম্পার ফলন তখন গুহায় গুহায়।

গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের মত একটা ওয়ার্মিং ইস্যু ঠিকঠাক করতে বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি যারপরনাই কল্যাণ বয়ে আনবে এইটা শিওর থাকেন।

৭৬৯ পঠিত ... ১৬:৩৩, এপ্রিল ০১, ২০২১

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top