করোনাকালে বিয়ে: বদলে যাচ্ছে সাজ-পোশাক ও আনুষ্ঠানিকতা

৭২৪ পঠিত ... ২২:৫৪, জুন ১৭, ২০২০

জন্ম-মৃত্যু-বিয়ে, মানুষের জীবন এই তিন নিয়ে। করোনাকালে অনেক কিছু থেমে গেলেও থেমে নেই জীবনের এই তিন আবশ্যক অনুসঙ্গ। টুকটাক বিয়ে হচ্ছে গোপনে কিংবা প্রকাশ্যে। বেশ কিছু কমিউনিটি সেন্টার ইতোমধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যমতে অন্তত ৫ বছর যদি করোনা পৃথিবীতে থেকে যায়, তাহলে কত শীত আর কাটবে বিয়ে ছাড়া! বিয়ে হবে, তবে বদলে যাবে নানান আনুষ্ঠানিকতা। ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান, বিউটি এক্সপার্ট, ক্যাটারিং সার্ভিসসহ বিয়ের সাথে সম্পৃক্ত আরো অনেক প্রতিষ্ঠানের সাথে আমাদের না করা এক আলাপে উঠে এসেছে সেসব পরিবর্তন। eআরকির 'বিয়ের জন্য তর সইছে না' গবেষকদের সেইসব করোনা-বিয়ে গবেষণা রইলো আজ পাঠকদের জন্য।

 

মাস্কে আসবে আভিজাত্য
শাড়ি-গয়না নয়, আভিজাত্য প্রকাশের মাধ্যম হবে মাস্ক। মাস্কে কত ভরি স্বর্ণ থাকবে, সেটাই এখন জরুরি ব্যাপার। গায়ে হলুদ, বিয়ে, রিসিপশনের মাস্ক জুড়েও আসবে নানান বৈচিত্র্য... এমনটাই জানালেন দেশের অখ্যাত ওয়েডিং ফ্যাশন ডিজাইনাররা। যেহেতু বেশিরভাগের নজর থাকবে মাস্কের দিকে, তাই মাস্কে আভিজাত্য ও মননশীলতা ফুঁটিয়ে তুলতে পারাই হবে বিয়ের অন্যতম প্রধান বিষয়।

রুচিভেদে মাস্কে বিখ্যাত আর্টিস্টদের চিত্রকর্মও স্থান পেতে পারে। কিংবা বর ও কনের পোট্রেইট দিয়েই তৈরি হবে বৈচিত্র্যপূর্ণ নানান মাস্ক।

পেশাভেদেও হতে পারে মাস্কের ডিজাইন। গণিতবিদের মাস্কে থাকবে গণিতের নানান সমীকরণ, ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার পাত্রীর মাস্কে থাকবে সার্কিটের পোট্রেইট, বর ব্যাংকার হলে মাস্কে থাকবে ৫০০, ১০০০ টাকার নোটের ছবি। বর যদি লেগুনার হেলপার হয় তার মাস্কে লেখা থাকবে, ভাংতি নাই, বাসের কন্ডাকটারের মাস্কে খালি সিটের ছবি।

কনের রূপের বাহার তো এখন বোঝা যাবে মাস্কের আভিজাত্যেই!

 

মেহেদী রাঙ্গা হাত দখল করবে হ্যান্ডগ্লাভস
হাতে মেহেদী লাগানোর ঐতিহ্য বদলে যেতে পারে গ্লাভসের মেহেদিতে। পার্লারগুলোতে আগে থেকেই নানান ডিজাইনের রেডিমেইড মেহেদি করা হ্যান্ড গ্লোভস থাকবে। বর-কনে সেখান থেকে বেছে নিবে পছন্দ মতো ডিজাইন। এমন পরিবর্তনের কথা চিন্তা করে নানান দামের, নানান ডিজাইনের মেহেদী আর্ট করা হ্যান্ড গ্লাভস বাজারে এনেছে বিউটি সেলুন 'পারসোনাল'।

 

পিপিই বেনারসি ও পিপিই শেরওয়ানী
মিরপুরের বেনারসি পল্লি গিয়ে দেখা মেলে পিপিই বেনারসির। উন্নতমানের লাল রংয়ের পিপিইর উপরে আধুনিক পুঁথির কাজ করা বেনারসির চাহিদা বেশি বলে জানান তারা। এদিকে ভারতভিত্তিক ফ্যাশন হাউজ 'অমান্যবর' নিয়ে এসেছে পিপিই শেরওয়ানী। পিপিই এর উপরে বরফকুঁচির কাজ করা এই শেরওয়ানী বরকে গরম থেকেও মুক্তি দিবে।

বরকে আর মুখে আলাদা করে রুমাল ধরার দরকার নেই!

 

গায়ে হলুদ নয়, হবে গায়ে স্যানিটাইজ
গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান বদলে যাবে গায়ে স্যানিটাইজ অনুষ্ঠানে। হলুদের পরিবর্তে বর-কনের গায়ে মাখানো হবে স্যানিটাইজার। প্রসাধনী প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানগুলো ইতোমধ্যে হলুদ রংয়ের স্যানিটাইজারও আনছে বাজারে!

 

খাবারে আমূল পরিবর্তন
খাবারে প্রোটিন কম রেখে মেন্যু সাজাচ্ছে অনেক কমিউনিটি সেন্টার। রেজালা, রোস্ট, জর্দা, কাবাবের পরিমাণ ও আইটেম কমে গিয়ে খাবার টেবিলে জায়গা করে নিচ্ছে কমলার কাবাব, মাল্টার মাটন, লেবুর শরবত। ডেজার্টের ফিরনির জায়গা দখল করে নিচ্ছে ভিটামিন ডি থ্রি, ভিটামিন সি এর ক্যাপসুল।

 

খোলা মাঠেই সব আনুষ্ঠানিকতা
বর-কনেসহ অনুষ্ঠানে আগত সকল অতিথির রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির কথা মাথায় রেখে খোলা মাঠে সূর্যের মিষ্টি আলোয় ভিটামিন ডি আহরণ করতে করতে চলবে বিয়ের যাবতীয় অনুষ্ঠান। মালঞ্চ কমিউনিটি সেন্টারের জৈষ্ঠ ব্যবস্থাপক গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানও দিনের বেলায় সূর্যের আলোয় করার ব্যবস্থা করেছেন।
ফিজিক্যাল এক্সারসাইজের কথা মাথায় রেখে খাবারও থাকবে আলাদা আলাদা টেবিলে। এক টেবিল থেকে পোলাও নিলে কমলার কাবাবের জন্য যেতে হবে ২০ কদম দূরে অন্য টেবিলে।

[এটি একটি স্যাটায়ার ফিচার। করোনার ঝুঁকির মধ্যে বিয়ে করলে যেমন নিজ দায়িত্বে করবেন, তেমনি এইটাকে সিরিয়াসলি নিলেও একেবারে নিজ দায়িত্বে নিবেন]

৭২৪ পঠিত ... ২২:৫৪, জুন ১৭, ২০২০

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top